শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৫:০৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কুষ্টিয়ায় কোরবানীর ঈদকে সামনে রেখে ২ লক্ষাধিক পশু প্রস্তুত : প্রতিবাদী কন্ঠ আবারো আলোচনায় সেই রবিজুল, দুজনকে তালাক দিতে ২২ গ্রাম প্রধানের চাপ : প্রতিবাদী কন্ঠ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর কলেজে হামলা ও ভাংচুরের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন : প্রতিবাদী কন্ঠ কুষ্টিয়ায় লিজকৃত রেলের জমি বিক্রি করে বাড়ী নির্মান : প্রতিবাদী কন্ঠ সরকার কোন দূর্ণীতিবাজকে পৃষ্টপোশকতা করছে না -এমপি হানিফ : প্রতিবাদী কন্ঠ কুষ্টিয়ায় ভেজাল খাদ্য প্রতিরোধে ভ্রাম্যমান ল্যাবরেটরি ভ্যানের যাত্রা শুরু : প্রতিবাদী কন্ঠ কুষ্টিয়ায় নিরাপদ খাদ্য বিষয়ক জনসচেতনতামূলক কর্মশালায় মিনিকেট নামে কোনো ধান নেই : প্রতিবাদী কন্ঠ সাংবাদিক ইউনিয়ন কুষ্টিয়ার সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত : প্রতিবাদী কন্ঠ কুষ্টিয়ায় অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত পান চাষিদের মাঝে চেক বিতরণ : প্রতিবাদী কন্ঠ কুষ্টিয়ায় ১০ দিন পর ইজিবাইক চালকের লাশ উদ্ধার : প্রতিবাদী কন্ঠ

মৃত নারীর নামে ওএমএস’র চাল নিচ্ছেন ইউপি সদস্য মহাসিন আলী মৃধা

প্রতিবাদী কণ্ঠ ডেস্ক:
  • প্রকাশিত সময় : শনিবার, ২৮ আগস্ট, ২০২১
  • ৭৯৩ পাঠক পড়েছে

মৃত ব্যক্তিকে জীবিত দেখানোর অনেক গল্প রয়েছে। এবার কম দামের কয়েক’শত কেজি চালের জন্য মৃত নারীকে কাগজে কলমে জীবিত রেখেছেন এক ইউপি সদস্য। অবাক করা এমন গল্প সত্যি করেছেন কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার ধুবইল ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মহাসিন আলী মৃধা। সে নিজেই খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ১০টাকা কেজি চালের পরিবেশক। ৩০০টাকায় মাসে ৩০কেজি চাল তা নিজের করে নিতে তিনি এক মৃত নারীর টিপসই
জাল করে চাল উত্তোলন করে আসছেন।
প্রায় তিনবছর আগে মৃত্যু হয়েছে আরজেনা খাতুনের। কিন্তু তাতে কী এরই মধ্যে তার নামে বরাদ্দকৃত কার্ড দিয়ে প্রায় তিনবছর ধরে কয়েক দফায় চাল উত্তোলন করা হয়েছে।
মৃত ওই নারী বৃদ্ধা আরজেনা খাতুন ছিলেন একজন ভিক্ষুক। সে ধুবইল ইউনিয়নের চকধুবইল গ্রামের মৃত আজিমুদ্দীনের স্ত্রী এবং ৪নংওয়ার্ড এলাকার বাসিন্দা ছিলেন।
মৃত এক নারীকে জীবিত দেখিয়ে চাল উত্তোলন করায় ক্ষোভ-প্রকাশ করেছেন গ্রামবাসী। দ্রুত তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন তারা।

মৃত আরজেনা খাতুনের ছেলের স্ত্রী রেহেনা খাতুন বলেন,আমার শাশুড়ির নামে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ওএমএসের বরাদ্দকৃত ১০ টাকা কেজির চালের কার্ড ছিল। তার কার্ডের নাম্বার ছিল-২১০। শাশুড়ি বেঁচে থাকতে কয়েকবার চাল উত্তোলন করেছেন তিনি নিজেই।
তার মৃত্যুর পর কার্ডটি ঠিক করে দেওয়ার কথা বলে পরে আর
কোনো খোঁজ দেননি। এখন শুনছি আমার মৃত শাশুড়ির নামে প্রায় তিনবছর ধরে চাল উত্তোলন করা হয়েছে। মেম্বার মহাসিন জাল টিপসই দিয়ে চাল আত্মসাৎ করেছে। এমন ঘৃণিত কাজের সঙ্গে জড়িতদের কঠোর বিচার চাই।

ধুবইল ইউনিয়নের খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি ওএমএসের চালের পরিবেশক (ডিলার) ও ৫ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য
মহাসিন আলী মৃধার সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে বিষয়টি স্বীকার করে জানান, এখন আর কিছু করে লাভ নাই। এখন কিছু করা হলে তা শুধুই আমাকে হয়রানী করা হবে।

ধুবইল ইউনিয়নের ৪নংওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মসের মন্ডল বলেন,প্রায় তিনবছর আগে আরজেনা খাতুন মারা গেছে। সে আমার ওয়ার্ড এলাকার বাসিন্দা ছিলেন। আরজেনা খাতুন ভিক্ষা করে তার সংসার চালাতেন। তার নামে ১০টাকা কেজির চালের কার্ড আমি সুপারিশ করে ছিলাম। তবে তার মৃত্যুর পরেও তার নামে জাল টিপসই করে চাল উত্তোলন করা হয়েছে। এটা খুবই দুঃখজনক ঘটনা।

ধুবইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহবুব রহমান মামুন বলেন,এটা আমার জানা ছিল না। খোঁজ খবর নিয়ে বিষয়টি জানাতে পারবো।

মিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লিংকন বিশ্বাস বলেন,বিষয়টি তদন্ত করে অবশ্যই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করে আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
© All rights reserved © 2021-2022 । প্রতিবাদী কন্ঠ
Design and Developed by DONET IT
SheraWeb.Com_2580