সোমবার, ১০ জুন ২০২৪, ০৮:৩০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
আবারো আলোচনায় সেই রবিজুল, দুজনকে তালাক দিতে ২২ গ্রাম প্রধানের চাপ : প্রতিবাদী কন্ঠ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর কলেজে হামলা ও ভাংচুরের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন : প্রতিবাদী কন্ঠ কুষ্টিয়ায় লিজকৃত রেলের জমি বিক্রি করে বাড়ী নির্মান : প্রতিবাদী কন্ঠ সরকার কোন দূর্ণীতিবাজকে পৃষ্টপোশকতা করছে না -এমপি হানিফ : প্রতিবাদী কন্ঠ কুষ্টিয়ায় ভেজাল খাদ্য প্রতিরোধে ভ্রাম্যমান ল্যাবরেটরি ভ্যানের যাত্রা শুরু : প্রতিবাদী কন্ঠ কুষ্টিয়ায় নিরাপদ খাদ্য বিষয়ক জনসচেতনতামূলক কর্মশালায় মিনিকেট নামে কোনো ধান নেই : প্রতিবাদী কন্ঠ সাংবাদিক ইউনিয়ন কুষ্টিয়ার সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত : প্রতিবাদী কন্ঠ কুষ্টিয়ায় অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত পান চাষিদের মাঝে চেক বিতরণ : প্রতিবাদী কন্ঠ কুষ্টিয়ায় ১০ দিন পর ইজিবাইক চালকের লাশ উদ্ধার : প্রতিবাদী কন্ঠ বিজয়ী প্রার্থীকে ফুলের মালা পরিয়ে ভাইরাল দৌলতপুরের ওসি রফিকুল : প্রতিবাদী কন্ঠ

কুষ্টিয়ার বিখ্যাত কুলফি মালাই এখন দেশের বিভিন্ন শহরে : প্রতিবাদী কন্ঠ

রেদোয়ানুল হক সবুজ :
  • প্রকাশিত সময় : শনিবার, ১৫ অক্টোবর, ২০২২
  • ১৯৭ পাঠক পড়েছে

রেদোয়ানুল হক সবুজ :কুষ্টিয়ার বিখ্যাত কুলফি মালাই। যা অর্ধশত বছর ধরে মানুষের মন জয় করে আসছে। যার চমৎকার স্বাদই আকর্ষণের মূল কারণ। ‘এই কুলফি, কুলফি মালাই ’ এমন হাঁক ডাক শোনা যায় কুষ্টিয়া জুড়ে। মানুষও ভিড় জমান বিক্রেতাকে ঘিরে আর খান স্বাদের এই মালাই। বর্তমানে এই বিখ্যাত কুলফি আইসক্রিম শুধু কুষ্টিয়াতেই নয়, কুলফি আইসক্রিম আইস প্যাকে করে যাচ্ছে দেশের বিভিন্ন শহরে। ঢাকা থেকে কুষ্টিয়ায় ঘুরতে এসেছেন সাইম নামে এক যুবক। শহরের মজমপুর গেটে বেশ মজা করে কুলফি মালাই খাচ্ছিলেন। কথা হয় তার সাথে। তিনি বলেন, ‘কুষ্টিয়ার কুলফি মালাইয়ের স্বাদের গল্প অনেক শুনেছি। মাথায় ছিল কুষ্টিয়ায় গিয়ে আর কিছু খাই বা না খাই কুলফি খাবই। তাই কুষ্টিয়ায় নেমেই আগে কুলফি মালাই খেয়েছি, অসাধারণ স্বাদ।

এদিকে কুলফি পরিবেশনের চিত্রটাও বেশ আকর্ষণীয়। লালসালু মোড়ানো পাত্র ঝাঁকিয়ে ভেতরে হাত ঢুকিয়ে বরফের মধ্য থেকে চাহিদা মতো টিনের কৌটার কুলফি বের করেন বিক্রেতা। এরপর এটা হাতে নিয়ে ঝাঁকিয়ে ছোট চাকু দিয়ে মুখে লাগানো প্রলেপ খুলে ফেলেন। আগে থেকে প্রস্তুত করে রাখা কলার পাতার ওপরে মালাই ঢেলে দিয়ে কয়েকটি খন্ড করা হয়। এরপর চামচ হিসেবে তালপাতার খন্ডিত অংশ গুঁজে দেয়া হয় আগ্রহী ক্রেতার হাতে। তবে অনেকেই পলিথিনের ছোট মোড়কে ঢেলেও বিক্রি করেন। পরিবেশের ক্ষতির কথা চিন্তা করে বিক্রেতারা কলাপাতায় খাওয়ার অনুরোধ করে থাকেন। দীর্ঘদিন এ ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন কুষ্টিয়া জেলার অনেক কুলফি মালাই বিক্রেতা। বংশ পরম্পরায় এই আইসক্রিম তৈরি করে আসছেন কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার কয়া গ্রামের বাসিন্দারা। কুলফি তৈরিতে সহযোগিতা করেন তাদের পরিবারের সদস্যরা। এরপর লালসালু মোড়ানো হাঁড়িতে ভরে কুলফির কৌটা নিয়ে শহরে আসেন বিক্রেতারা। বরফ ও লবণ কিনে হাঁড়িতে দিয়ে নাড়া দিলেই জমতে থাকে মালাই। এরপর কুলফির হাঁড়ি মাথায় নিয়ে গ্রাম-শহরের একেক দিকে ছড়িয়ে পড়েন বিক্রেতারা।

কুমারখালীর কয়া গ্রামের কুলফি মালাই প্রস্তুতকারক ও বিক্রেতা মোঃ আলতাফ শেখ বলেন, ‘প্রায় ৪০বছর ধরে আমি এই কুলফি মালাইয়ের ব্যবসা করছি। প্রতিদিন নিজ হাতে কুলফি মালাই তৈরি করে কুষ্টিয়া শহরের বিভিন্ন এলাকায় বিক্রি করি। ‘করোনার সময় ব্যবসা-বাণিজ্য বন্ধ হয়ে গিয়েছিল, সে সময় তাদের বেশ কষ্ট হয়েছে। তবে এখন মোটামুটি ব্যবসা ভালো হচ্ছে। বর্তমান এই এলাকার তৈরি কুলফি মালাই ঢাকা, চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় যায়। কুষ্টিয়া জেলা ব্র্যান্ডিংয়ের অংশ কুলফি মালাই। তাই এর প্রসারের চিন্তা আছে বলে জানান কুষ্টিয়া ক্ষুদ্র কুটির শিল্পের (বিসিক) উপ-মহাব্যবস্থাপক মোঃ আশানুজ্জামান। তিনি বলেন, দেশের বাইরেও যাতে রপ্তানি করা যায় সে ব্যাপারে প্রস্তুতকারকদের সহযোগিতা করা হচ্ছে। পুঁজি সংকট থাকলে কুলফি বিক্রেতাদের ঋণ দিতে ব্যাংক গুলোকে সুপারিশ করা হবে বলেও জানান তিনি।

নিউজটি শেয়ার করে আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
© All rights reserved © 2021-2022 । প্রতিবাদী কন্ঠ
Design and Developed by DONET IT
SheraWeb.Com_2580